এডভোকেট রনজিত সরকারকে সিলেট ওসমানী বিমানবন্দরে সংবর্ধনা

প্রকাশিত: ১:০৪ অপরাহ্ণ, নভেম্বর ২৮, ২০২৩

এডভোকেট রনজিত সরকারকে সিলেট ওসমানী বিমানবন্দরে সংবর্ধনা

আগামী দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে সুনামগঞ্জ-১ আসনে (জামালগঞ্জ, তাহিরপুর, ধর্মপাশা ও মধ্যনগর উপজেলা) বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট রনজিত সরকার বলেছেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের উন্নয়ন দর্শন ছিল অর্থনৈতিক, সাংস্কৃতিক, সামাজিক, রাজনৈতিক মুক্তি-মধ্যস্থতাকারী উন্নয়ন দর্শন, যা বিনির্মাণে নিয়ামকের ভূমিকায় থাকবে সর্বস্তরের জনগণ। বঙ্গবন্ধুর অর্থনৈতিক মুক্তির স্বপ্নপূরণ এবং ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত একটি সমৃদ্ধ জাতি গঠনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০০৮ সালে জাতিকে উপহার দেন ভিশন-২০২১ বা রূপকল্প-২০২১।

তিনি আরো বলেন, নৌকা শুধু প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বা আওয়ামী লীগের মার্কা নয়। নৌকা বাংলাদেশের উন্নয়ন অগ্রগতির মার্কা হয়ে দাঁড়িয়েছে। প্রধানমন্ত্রী ঘোষণা দিয়েছেন বাংলাদেশ হবে স্মার্ট বাংলাদেশ। আমি সুনামগঞ্জ-১ আসনের মানুষকে নিয়ে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার একজন সারথী হতে চাই। আসন্ন নির্বাচনে আমার এই আসন দেশরত্ন শেখ হাসিনাকে উপহার দিতে চাই।

তিনি বলেন, দল ও আমার সভানেত্রী আমাকে মনোনিত করেছেন। আমি আপনাদের কাছে প্রার্থনা চাই, যাতে আমি নির্বাচনে জয়ী হয়ে সুনামগঞ্জবাসীর সেবায় আন্তরিকভাবে কাজ করতে পারি।

মঙ্গলবার (২৮ নভেম্বর) দুপুর ১২টায় সিলেট ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ এবং অঙ্গসহযোগী সংগঠনের উদ্যোগে আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন। এসময় তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান সর্বস্থরের নেতৃবৃন্দ।

সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক জাকির হুসেন এর সভাপতিত্বে এবং সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিলেট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট নাসির উদ্দিন খানের পরিচালনায় সংবর্ধনা প্রদানকালে বক্তব্য রাখেন ও উপস্থিত ছিলেন সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আনোয়ারুজ্জামান চৌধুরী, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি এডভোকেট নিজাম উদ্দিন, অধ্যক্ষ সুজাত আলি রফিক, নাজনিন হুসেন, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক কবির উদ্দিন, মহানগর আওয়ামী লীগের যুগ্ন সাধারণ সম্পাদক আজাদুর রহমান আজাদ, বিধান কুমার সাহা, জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মাহফুজুর রহমান, সাইফুল আলম রুহেল, প্রচার সম্পাদক এডভোকেট আব্বাস উদ্দিন, উপ দপ্তর সম্পাদক মজির উদ্দিন, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এডভোকেট ফখরুল ইসলাম, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্য মুক্তার খান, এমরুল হাসান, সিলেট মহানগর মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আসমা কামরান, সিলেট জেলা যুবলীগের সভাপতি ভিপি শামিম আহমদ, মহানগর যুবলীগের সভাপতি আলম খান মুক্তি, সাধারণ সম্পাদক মুশফিক জায়গিরদার, জেলা স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আফসর আজীজ, সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিন কয়েস, মহানগর স্বেচ্ছাসেবকলীগের সভাপতি আফতাব হুসেন খান, সাধারণ সম্পাদক দেবাংশু দাস মিঠু, ৩৫ নং ওয়ার্ড কাউন্সিলর জাহাঙ্গীর আলম, সিলেট জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নাজমুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক রাহেল সিরাজ, মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি কিশওয়ার জাহান সৌরভ, সাধারণ সম্পাদক নাঈম আহমেদ, ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামিম আহমেদ মুরাদ, তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এখলাছুর রহমান তারা, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি পংকজ পুরকায়স্থ, মহানগর স্বেচ্ছাসেবলীগের সহ-সভাপতি এম এ সামাদ, উছমানপুর ইউনিয়নের চেয়ারম্যান ওয়ালী উল্লাহ বদরুল, সেলিম চৌধুরী, জেলা যুবলীগের অর্থ সম্পাদক কামরুল ইসলাম, মহানগর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সঞ্জয় চৌধুরী, দপ্তর সম্পাদক সাজলু লস্কর, বেহেলি ইউনিয়নের চেয়ারম্যান সুব্রত সামন্ত সরকার, জেলা যুবলীগের সদস্য জাহেদুর রহমান চৌধুরী, মোহাম্মদ আমিন শিবলু ফরহাদ খান, গুলাম রহমান চৌধুরী রাজন, গুলাম কিবরিয়া রাসেল, জিহাব আহমেদ, সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের সাধারণ সম্পাদক এমাদুল হোসাইন, দেলোয়ার হুসেন, হোসাইন আহমেদ, রাজীব কুমার দাশ, একে এম জাকারিয়া।

অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন মধ্যনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গিয়াস উদ্দিন তালুকদার, ধর্মপাশা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আব্দুল হাউ তালুকদার, তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ সভাপতি আলী মুর্তজা, মধ্যনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক পরিতোষ সরকার, ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমেদ মুরাদ, মধ্যনগর উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সম্পাদক ও ইউপি চেয়ারম্যান আলমগীর খসরু, তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আলমগীর খোকন, এখলাছুর রহমান তারা, ধর্মপাশা উপজেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক ও সদর ইউপি চেয়ারম্যান জুবায়ের পাশা হিমু, বংশীকুন্ডা দক্ষিণ ইউপি চেয়ারম্যান ও সদস্য রাসেল আহমেদ, বেহেলী ইউপি চেয়ারম্যান সুব্রত সামন্ত সরকার, জয়শ্রী ইউনিয়ন পরিষদ সাবেক চেয়ারম্যান ও ধর্মপাশা সদর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সেলিম আহমেদ, তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামী সদস্য আজিজুল হক, এডভোকেট এম এইচ, ওয়াসীম, তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামী সেচ্ছাসেবকলীগের সাধারণ সম্পাদক ইমরান হোসেন বিপক, জামালগঞ্জ উপজেলায় আওয়ামী সেচ্ছাসেবকলীগের সহ সভাপতি বুরহান উদ্দিন, সিলেট মহানগর আওয়ামী সেচ্ছাসেবকলীগের সাহিত্য ও সংস্কৃতি বিসয়ক সম্পাদক এডভোকেট রোখন মিয়া, ধর্মপাশা উপজেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক আল আমিন খান, প্রমুখ।

এছাড়াও সুনামগঞ্জ-১ আসন থেকে আগত হাজার হাজার নেতাকর্মী, সিলেট জেলার বিভিন্ন উপজেলা, বিশ্ববিদ্যালয় কলেজ ছাত্রলীগ, যুবলীগ, স্বেচ্ছাসেবকলীগ নেতাকর্মীর মোটর সাইকেল বহর নিয়ে মিছিল সহকারে যোগদান করেন। এসময় পুরো বিমানবন্দর এলাকা নৌকা এবং রনজিত সরকার স্লোগানে প্রকম্পিত হয়ে উঠে।

এস এ

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ