আদিপুরুষ নিয়ে নেপালের কাছে ক্ষমা চাইল টি সিরিজ

প্রকাশিত: ৬:৪০ পূর্বাহ্ণ, জুন ২০, ২০২৩

আদিপুরুষ নিয়ে নেপালের কাছে ক্ষমা চাইল টি সিরিজ

গত শুক্রবার (১৬ জুন) মুক্তি পেয়েছে আদিপুরুষ। ছবিটি নিয়ে বিতর্ক শুধু ভারতেই নয় মাথা ব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে পার্শ্ববর্তী দেশ নেপালেরও। সিনেমার একটি অংশে সীতাকে ভারতকন্যা বলায় রীতিমতো রেগে যান তারা। সম্প্রতি কাঠমান্ডুর মেয়র বালেন্দ্র শাহ নেপালের রাজধানীর সব হলে বলিউডের ছবি প্রদর্শন বন্ধের নির্দেশ জারি করেন। এর পরে টি টিসিরিজের পক্ষ থেকে নেপালের কাছে ক্ষমা চাওয়া হয়।

বালেন্দ্র শাহের মতে, সীতা জনকপুরের রাজা জনকের কন্যা ছিলেন। আর এই ছবিতে সীতাকে ভারতের কন্যা বলে দাবি করা হয়েছে। এদিকে জনকপুর নেপালে অবস্থিত। ছবি মুক্তি পাওয়ার পরই কাঠমান্ডুর মেয়র এই ছবির নির্মাতাদের অনুরোধ করেন এই ভুল শুধরে নেওয়ার জন্য। অথবা সিনটা বাদ দিয়ে দেওয়ার জন্য। কিন্তু এই বিষয়ে কোনও সাড়া না পেয়ে গোটা বলিউডকে ব্যান করার সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলেন।

বিষয়টি নিয়ে ছবির প্রযোজনার দায়িত্বে থাকা ব্যক্তিদের পক্ষ থেকে চিঠি লেখা হয় কাঠমান্ডু মেট্রোপলিটন সিটির মেয়র বালেন্দ্র শাহ এবং নেপালের চলচ্চিত্র উন্নয়ন বোর্ডের কাছে।

চিঠিতে লেখা হয়, ‌‘শ্রদ্ধেয় স্যার, শুরুতেই আমরা ক্ষমাপ্রার্থী যদি কোনোভাবে নেপালের জনগণের অনুভূতিতে আঘাত দিয়ে থাকি। এটা ইচ্ছাকৃত বা ইচ্ছাকৃতভাবে করা কোনো ভুল নয়। প্রভাস, যিনি এই ছবিতে রাম তার মুখের ডায়লগটি হলো, ‘আজ আমার জন্য লড়াই করতে হবে না। বরং সেই দিনটার কথা ভেবে লড়াই করো যাতে যখন ভারতের কোনো মেয়ের গায়ে হাত দেওয়ার আগে অপকর্মকারীরা কেঁপে উঠবে।’ এখানে কিন্তু সীতা মাতার জন্মের কোনো উল্লেখ নেই। বরং নারীদের, বিশেষ করে ভারতের নারীদের মর্যাদা বোঝায়, এই সংলাপ বলে গোটা বিশ্বের নারীদের মর্যাদা আসলে আমাদের কাছে গুরুত্বপূর্ণ।

আমরা আপনাদের ছবিটি দেখার অনুরোধ করছি। এবং এই ছবির শিল্প সত্তাকে আরও বড় জনতার সামনে পৌঁছে দেওয়ার অনুরোধ জানাচ্ছি।

যদিও ছবির বক্স অফিস রিপোর্ট বলছে আদিপুরুষ রয়েছে লাভের খাতাতেই। প্রথম দিনে এই সিনেমা সিনেমাটি বিশ্বব্যাপী ১৪০ কোটি সংগ্রহের করেছিল। শনিবার যোগ হয় ১০০ কোটি টাকা। আর তৃতীয় দিনে ছবি আয় করে ৬৪ কোটির কাছাকাছি। ৩০০ কোটির ঘর পেরিয়ে গিয়েছে আদিপুরুষ প্রথম সপ্তাতেই।

এস এ