জন্মদিনে নিপুণকে যে খোঁচা দিলেন জায়েদ খান

প্রকাশিত: ৪:৫৪ পূর্বাহ্ণ, জুন ১০, ২০২৩

জন্মদিনে নিপুণকে যে খোঁচা দিলেন জায়েদ খান

গতকাল ৯ জুন ঢাকাই চলচ্চিত্রের চিত্রনায়িকা নিপুণ আক্তারের জন্মদিন ছিলো। ১৯৮৪ সালের ৯ জুন কুমিল্লার জালগাঁওয়ে জন্ম নেয়া নিপুণ আক্তার জীবনের ৩৯ বসন্ত পেরিয়ে ৪০-এ পা রাখলেন।

ঢাকাই চলচ্চিত্রের এ নায়িকার জন্মদিন উপলক্ষে সামাজিকমাধ্যমসহ নানা মাধ্যমে শুভেচ্ছা জানাচ্ছেন অনেকে। এর মধ্যে ভক্ত-শুভাকাঙ্ক্ষীসহ রয়েছে ইন্ডাস্ট্রির তারকারা।

অন্যান্য তারকার মতো নিপুণকে জন্মদিনের শুভেচ্ছ জানিয়েছেন চিত্রনায়িকা শাহনূর। আর সেখানেই নিপুণকে ‘অনির্বাচিত মানুষকে পদবী দিচ্ছেন’ বলে মন্তব্য করলেন চিত্রনায়ক জায়েদ খান।

বৃহস্পতিবার রাত ১টার দিকে নায়িকা শাহনূর ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্টে নিপুণের সঙ্গে তোলা কয়েকটি ছবি পোস্ট করেন। সেখানে ক্যাপশনে লেখেন, ‘আজকে বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক, জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত অভিনেত্রী নিপুণ আক্তারের শুভ জন্মদিন। তোমার জন্য অনেক অনেক শুভকামনা এবং দোয়া রইলো। সব সময় ভালো থেকো, সুস্থ থেকো। আবারও শুভ জন্মদিন।’

অভিনেতা শাহনূরের পোস্টে মন্তব্যের ঘরে চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির দুইবারের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান লেখেন, ‘একজন অনির্বাচিত মানুষ ভোটে পাস না করে জোর করে চেয়ারে বসে আছে, সর্বোচ্চ আদালতে মামলা চলমান। আপনার মতো শিল্পী তাকে সাধারণ সম্পাদক পদবী দিয়ে যাচ্ছেন।’

তিনি আরো লেখেন, ‘এরপরও নীতি বাক্য ছাড়বেন ও ভালো ভালো উপদেশ দেবেন। সত্যিকারে যে সততা আর নীতির মধ্যে আপনারা নাই, এটা বুঝতে পারছেন তো?’

তবে শুধু চিত্রনায়িকা শাহনূরের পোস্টেই নয়। চিত্রনায়িকা অঞ্জনা রহমানের নিপুণকে নিয়ে করা জন্মদিনের পোস্টেও একই মন্তব্য করেছেন জায়দ খান। এদিকে জায়েদ খানের এ মন্তব্যে চিত্রনায়িকা নিপুণ, শাহনূর কিংবা অঞ্জনার কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি এখনো।

প্রসঙ্গত, উচ্চমাধ্যমিক সম্পন্ন করার পর রাশিয়ায় চলে যান ১৯৯৯ সালে। ২০০৪ সাল পর্যন্ত মস্কোতে পড়ালেখা করেন। এরপর চলে যান মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। সেখানে পড়ালেখা শেষ করে দেশে ফিরে আসেন ২০০৬ সালে। আর ঐ বছরই অভিষেক করেন ঢাকাই চলচ্চিত্রে।