মধ্যনগরে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে প্রকল্পের টাকা আত্মসাৎ চেষ্টার অভিযোগ

প্রকাশিত: ৫:৩৪ পূর্বাহ্ণ, মে ৩১, ২০২৩

মধ্যনগরে চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে প্রকল্পের টাকা আত্মসাৎ চেষ্টার অভিযোগ

সুনামগঞ্জের মধ্যনগর উপজেলার বংশিকুন্ডা দক্ষিণ ইউপি চেয়ারম্যান রাসেল আহম্মেদের বিরুদ্ধের কাজ না করেই বিভিন্ন প্রকল্পের টাকা উত্তোলন করে আত্মসাতের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

মঙ্গলবার (৩০ মে) দুপুরে ওই ইউনিয়নের বংশিকুন্ডা গ্রামের বাসিন্দা সারোয়ার হোসেন খোকা বাদি হয়ে ইউপি চেয়ারম্যান রাসেল আহম্মেদের বিরুদ্ধে মধ্যনগর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দায়িত্বে থাকা ধর্মপাশা ঊপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন।

অভিযোগে জানা গেছে, রাসেল আহম্মেদ চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পাওয়ার পর থেকেই নিজ ইউনিয়নের বিভিন্ন এলাকার শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, গোরস্থানের উন্নয়ন, গ্রামীণ রাস্তা-ঘাট মেরামত ও মাটি কেটে গোরাট ভরাট, বাজারে সোলার ল্যাম্পপোস্ট স্থাপন দেখিয়ে তিনি টিআর, কাবিখা ও কাবিটা প্রকল্পের প্রায় সাড়ে ৮ লাখ টাকা সহ প্রায় সাড়ে ১০ মেট্রিক টন খাদ্য শস্য উত্তোলন করেন। কিন্তু তিনি এসব প্রকল্পের উত্তোলনকৃত টাকা প্রকল্প সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিদেরকে ম্যানেজ করে কোনো রকম কাজ না করেই টাকা আত্মসাৎ করার পাঁয়তারা চালিয়ে যাচ্ছেন।

অভিযুক্ত ইউপি চেয়ারম্যান রাসেল আহম্মেদ তাঁর বিরুদ্ধে দায়েরকৃত অভিযোগটি সম্পূর্ণ মিথ্যা ও ভিত্তিহীন উল্লেখ করে বলেন, মূলত একটি চক্র সামাজিকভাবে আমাকে হেয় প্রতিপন্ন করার উদ্দেশ্যে সারোয়ার হোসেন খোকা নামে একই ব্যক্তিকে দিয়ে কিছুদিন পরপর আমার বিরুদ্ধে এসব মিথ্যা অভিযোগ করাচ্ছেন।

এ বিষয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শীতেষ চন্দ্র সরকার বলেন, অভিযোগটি এখনও আমার নজরে আসেনি। তবে অভিযোগটি দেখান পর এ ব্যাপারে তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।