জামেয়া নূরিয়া ইসলামিয়া ভার্থখলা সিলেট’র বৃত্তি প্রদান ও শুকরিয়া মাহফিল

প্রকাশিত: ১:০৩ অপরাহ্ণ, মে ৩১, ২০২৩

জামেয়া নূরিয়া ইসলামিয়া ভার্থখলা সিলেট’র বৃত্তি প্রদান ও শুকরিয়া মাহফিল

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী বলেছেন, ধর্মীয় শিক্ষার কোন বিকল্প নেই। তাই শিশুদের নিজ ধর্মীয় শিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে হবে। কোরআন শিক্ষার মাধ্যমে শিশুরা আদর্শবান হয়ে উঠবে। শিক্ষকরাই হচ্ছে মানুষ গড়ার কারিগর। ভালো শিক্ষার মাধ্যমে উন্নত জাতি গঠন করা যায়। শিক্ষাই হচ্ছে জাতির মেরুদন্ড। ভার্তখলা মাদ্রাসা থেকে শিক্ষার্থীরা ভালো শিক্ষা অর্জন করে দেশ ও জাতির জন্য জন্য করবে।

তিনি আরো বলেন, ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত উন্নত দেশ গড়তে শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই। এজন্য আমাদের শিক্ষাকে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দিয়ে এদেশে কোমলমতী শিশুদের সুশিক্ষায় শিক্ষিত করে গড়ে তুলতে হবে। সমাজে ধর্মীয় শিক্ষার প্রয়োজন আছে, কারণ ধর্মীয় শিক্ষা মানুষকে আদর্শ নাগরিক হিসেবে গড়ে তোলে। তবে তথ্য প্রযুক্তির বিশ্বে দেশকে এগিয়ে নিতে হলে ধর্মীয় শিক্ষার পাশাপাশি কারিগরী শিক্ষাকেও গুরুত্ব দিতে হবে। এর মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা নানামুখী দক্ষতা অর্জন করে। এজন্য তিনি অন্যান্য শিক্ষার পাশাপাশি কারিগরী শিক্ষাকে অধিক গুরুত্ব দিতে সকলের প্রতি আহবান জানান। জেনারেল শিক্ষারতির চেয়ে মদ্রাসার ছেলে গুলো অনেক ট্যালেন্ট হয়। কারণ তারা একই শঙ্গে বাংলা, ইংরেজি, গনিত ও আরবি পড়ে।

তিনি বুধবার (৩১ মে) সকাল ১১টায় সিলেট শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত ঐতিহ্যবাহী দ্বীনি বিদ্যাপীঠ জামেয়া নূরিয়া ইসলামিয়া ভার্থখলা সিলেট এর ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষের বৃত্তি প্রদান ও শুকরিয়া মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে উপরোক্ত কথাগুলো বলেন।

জামেয়ার প্রতিষ্টাতা প্রিন্সিপাল হাফিজ মাওলানা শায়খ মজদুদ্দীন আহমদ এর সভাপত্বিতে অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন মাওলানা তাজুল ইসলাম হাসান, মুখলিছুর রহমান, আব্দুল মালিক মারুফ, হাজী আব্দুল আহাদ মিয়া, আব্দুস সাত্তার, মাওলানা বেলাল আহমদ চৌধুরী ওয়েছ, ড. আখলাক আহমদ, হাজী মুক্তা মিয়া, জাহাঙ্গীর আলম, জামিল আহমদ, সফিক মিয়া সহু জামেয়ার সকল উস্তাদবৃন্দ প্রমুখ।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ