সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩ বন্ধুকে পাশাপাশি দাফন

প্রকাশিত: ৫:৫৪ পূর্বাহ্ণ, মে ১৮, ২০২৩

সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ৩ বন্ধুকে পাশাপাশি দাফন

ফরিদপুরে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত তিন বন্ধুকে চোখের জলে বিদায় জানিয়েছে এলাকাবাসী। তিন বন্ধুর জানাজা শেষে পাশাপাশি কবরে দাফন করা হয়েছে। এ সময় পরিবারের সদস্য, বন্ধু, স্বজন ও এলাকাবাসীর আহাজারিতে পরিবেশ ভারী হয়ে ওঠে।

বুধবার বিকেলে আছরের নামাজের পর ফরিদপুরের মধুখালী উপজেলার বাগাট ঈদগাহ মাঠে তাদের জানাজা অনুষ্ঠিত হয়। এতে অংশ নেয় হাজারো মানুষ। জানাজা শেষে কবরস্থানে তিন বন্ধুকে দাফন করা হয়।

এর আগে মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে জেলার মধুখালী উপজেলার ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের বাগাট পশ্চিমপাড়া এলাকায় গাড়িচাপায় মারা যান মোটরসাইকেল আরোহী তিন বন্ধু।

নিহতরা হলেন- মধুখালী উপজেলার বাগাট ইউনিয়নের সদর এলাকার বিশ্বাসপাড়ার বাদশা বিশ্বাসের ছেলে জুবায়ের বিশ্বাস (২০), ইদ্রিস আলী বিশ্বাসের ছেলে নাহিদ বিশ্বাস (২১) ও মজিবর সরদারের ছেলে হুসাইন সরদার (২০)। জুবায়ের ডিগ্রিতে অধ্যয়নরত ছিলেন। এছাড়া নাহিদ বাড়িতে ও হুসাইন বাগাট বাজারে কাঁচামালের ব্যবসা করতেন।

বাগাট ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মতিয়ার রহমান খান জানান, তিন বন্ধু জুবায়ের, নাহিদ ও হুসাইনের জানাজা বাগাট কেন্দ্রীয় ঈদগাহ মাঠে অনুষ্ঠিত হয়েছে। জানাজায় হাজারো মানুষ অংশ নেয়। জানাজা শেষে বাগাট কবরস্থানে পাশাপাশি তাদের দাফন করা হয়েছে।

তিনি আরও জানান, তারা ঘনিষ্ঠ বন্ধু ছিলেন। মারা গেছেন একসঙ্গে, এ কারণে একসঙ্গে জানাজা ও দাফন পাশাপাশি করা হয়েছে।

ইউপি চেয়ারম্যান জানান, বৃষ্টির মধ্যে মোটরসাইকেলযোগে কামারখালী থেকে মঙ্গলবার রাতে বাড়িতে আসছিল তারা। বাড়ির কাছাকাছি আসা মাত্রই ঢাকা-খুলনা মহাসড়কের বাগাট বিশ্বাস পাড়া এলাকায় পৌঁছতেই অজ্ঞাত একটি গাড়ি তাদের মোটরসাইকেলকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলেই দুজন মারা যায়। অন্যজনকে গুরুতর আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।

করিমপুর হাইওয়ে থানার ওসি এস এম শহিদুর রহমান জানান, তিনজনের মরদেহ মধুখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স থেকে পরিবারের সদস্যদের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

মধুখালী থানার ওসি শহিদুল ইসলাম জানান, মহাসড়কে তিন বন্ধু নিহতের ঘটনায় থানায় মামলা হয়েছে। অজ্ঞাত গাড়ি ও সেটির চালকের বিরুদ্ধে সড়ক পরিবহন আইনে মামলাটি করা হয়েছে।