পিস্তল সদৃশ লাইটার দিয়ে ছিনতাইর চেষ্টা, আটক ৩

প্রকাশিত: ১২:৩৭ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ২৪, ২০২৩

পিস্তল সদৃশ লাইটার দিয়ে ছিনতাইর চেষ্টা, আটক ৩

সিলেটে পিস্তল সদৃশ লাইটার দিয়ে ছিনতাইর চেষ্টাকালে তিনজনকে আটক করেছে র‌্যাব।

রবিবার তাদেরকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারে প্রেরণ করা হয় বলে জানিয়েছেন জালালাবাদ থানার ওসি সাইফুল ইসলাম।

আটককৃতরা হলেন- সুনামগঞ্জ জেলা সদরের জেল রোডের অভিযাত্রী-২১ নম্বর বাসার অসিত কুমার দাসের ছেলে অভ্র কুমার দাস (৩২) এবং সিলেট নগরীর দরগাহ মহল্লার কোরেশী বাড়ির কুতুব উদ্দিন আহমেদ কোরেশীর ছেলে মুন্না কোরেশী (৩১) ও তার ভাই জালাল আহমেদ রানা কোরেশী (১৮)। মামলায় অজ্ঞাত আরও ৫-৬ জনকে আসামী করা হয়েছে।

রবিবার সিলেট মহানগরীর জালালাবাদ থানায় মামলাটি দায়ের করেন সিলেট নগরীর ৮নং ওয়ার্ডের ব্রাহ্মনশাসন এলাকার আবদুল লতিফের ছেলে মো. সোনা মিয়া।

মামলার এজহারে সোনা মিয়া উল্লেখ করেন, গত শনিবার রাত ৯টা ২০ মিনিটের দিকে তিনি ৩৭নং ওয়ার্ডের ফেমাস মেসের কাছে তার এক আত্মীয়ের বাড়িতে বেড়াতে যান। ওই সময় বাড়ির পাশে কয়েকজন যুবক পিস্তল সদৃশ বস্তু ঠেকিয়ে তার কাছে টাকা দাবি করে। এনিয়ে তিনি শোরচিৎকার করলে র‌্যাবের একটি টহল দল আসে। র‌্যাবের উপস্থিতি টের পেয়ে বাকিরা পালিয়ে গেলেও তিনজনকে আটক করা সম্ভব হয়।

সোনা মিয়া জানান, আটকের পর অভ্র কুমার দাস র‌্যাবের কাছে স্বীকার করেছে ছিনতাইর উদ্দেশ্যে তারা অস্ত্র ঠেকিয়ে ভয় দেখিয়েছে। একইভাবে তারা নগরীর বিভিন্ন স্থানে ছিনতাই করে আসছে।

জালালাবাদ থানার ওসি সাইফুল ইসলাম জানান, উদ্ধারের পর দেখা গেছে পিস্তল সদৃশ বস্তুটি আসলে একটি লাইটার। এটি প্রদর্শন করে আগ্নেয়াস্ত্রের ভয় দেখিয়ে দুর্বৃত্তরা ছিনতাই করতো। রবিবার তাদেরকে আদালতে সোর্পদ করে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ