মাধবপুরে পাগলা কুকুরের কামড়ে আহত ৪০

প্রকাশিত: ১২:৪৩ অপরাহ্ণ, এপ্রিল ১৭, ২০২৩

মাধবপুরে পাগলা কুকুরের কামড়ে আহত ৪০

হবিগঞ্জের মাধবপুরে পাগল কুকুরের কামড়ে অন্তত চল্লিশ জন আহত হয়েছেন। পরে এলাকার লোকজন মিলে কুকুরটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলে।

শনিবার বিকেলে উপজেলার জগদীশপুর ইউনিয়ন বড়ধুলিয়া গ্রামের পুকুরে গোসল করার সময় এক শিশু কন্যাকে পুকুরে নেমে কামড়ায়। শিশুটির চিৎকারে বাড়ির লোকজন এলে কুকুরটি দৌড়ে পালিয়ে যায়।

স্থানীয় সুত্রে জানা যায়, সোমবার সকাল পর্যন্ত পর্যায়ক্রমে রওশনআরা বেগম (৫০), বায়জিদ মিয়া (২৭), বিল্লাল মিয়া (৪৮), সেলিম মিয়া (৩৬), নীল বেগম (১৩), জীবন মিয়া ( ১০), শিল্পী বেগম (৩২), পারভীন ( ৩০), রীণা বেগম (৪৫), মোছা: মাওয়া( ২) সহ বড়ধুলিয়া, বেজুরা, সন্তোষপুর, জগদীশপুর তেমনিয়া ও চারাভাঙ্গা গ্রামের অন্তত চল্লিশ জনকে কামড়েছে কুকুরটি। গত দুই দিন কয়েকটি গ্রামের মানুষ পাগলা কুকুর আতঙ্কে হাতে লাটিসোটা নিয়ে চলাফেরা করছিলেন।

অবশেষে সোমবার সকালে এলাকার কিছু সাহসী যুবক কুকুরটিকে পিটিয়ে মেরে ফেলেছে বলে নিশ্চিত করেন জগদীশপুর ইউপি’র চেয়ারম্যান মাসুদ খান।

উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা এএইচএম ইশতাক মামুন বলেন, পাগল কুকুরের কামড়ে আহতরা নির্দিষ্ট সময়ে চিকিৎসা না নিলে জলাতঙ্ক রোগে আক্রান্ত হয়ে পড়েন। আক্রান্ত অধিকাংশ লোক স্থানীয় বাজারে গিয়ে ভ্যাকসিন কিনে চিকিৎসা নিয়েছেন। মাধবপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সেও বেশ কয়েকজন চিকিৎসা নিয়েছেন। হাসপাতালে ভ্যাকসিন না থাকায় কর্তব্যরত চিকিৎসক জেলা সদর হাসপাতালে গিয়ে ভ্যাকসিন নিতে পরামর্শ দেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মনজুর আহসান বলেন, বিষয়টি আমি অবগত হয়েছি। দরিদ্র আক্রান্তদের প্রয়োজনে ভ্যাকসিন ক্রয়ের জন্য রোগী কল্যাণ তহবিল থেকে সহযোগিতা করা হবে।