বিএনপি নির্বাচনকে পাশ কাটিয়ে বিকল্প পথে ক্ষমতায় যেতে চায়: শফিকুর রহমান চৌধুরী

প্রকাশিত: ১১:৩৩ পূর্বাহ্ণ, এপ্রিল ৮, ২০২৩

বিএনপি নির্বাচনকে পাশ কাটিয়ে বিকল্প পথে ক্ষমতায় যেতে চায়: শফিকুর রহমান চৌধুরী

বিএনপি জনসমর্থন হারিয়ে নির্বাচনকে পাশ কাটিয়ে বিকল্প পথে ক্ষমতায় যেতে চায়। এজন্য তারা দেশব্যাপী সন্ত্রাস এবং নৈরাজ্য সৃষ্টি করে যাচ্ছে। বিএনপি-জামায়াতের চলমান নৈরাজ্যে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা ঘরে বসে থাকতে পারেনা। বিএনপি- জামায়াতের চলমান নৈরাজ্যের বিরুদ্ধে দেশের গণতান্ত্রিক সকল শক্তি ও শান্তিকামী জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। সিলেট জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগের উদ্যোগে বিএনপি জামায়াতের চলমান নৈরাজ্য ও সহিংসতার প্রতিবাদে শান্তি সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে শফিকুর রহমান চৌধুরী এ কথা বলেন।

মহানগর আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এ টি এম হাসান জেবুল এর সঞ্চালনায় আজ শনিবার (৮ এপ্রিল) বিকেল ২টায় সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদ মিনারে অনুষ্ঠিত আওয়ামী লীগের শান্তি সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সিলেট জেলা পরিষদ এর চেয়ারম্যান এডভোকেট মোঃ নাসির উদ্দিন খান, মহানগর আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আসাদ উদ্দিন আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি অধ্যক্ষ সুজাত আলী রফিক।

মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মাসুক উদ্দিন আহমদ বলেন, বিএনপি-জামায়াত দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করে দেশে চলমান গণতান্ত্রিক ধারা ব্যাহত করতে চায়। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মী বিএনপি জামায়াতের এই অভিলাষ পূরণ হতে দিবে না।

এডভোকেট মোঃ নাসির উদ্দিন খান তাঁর বক্তব্যে বলেন, শেখ হাসিনা সরকারের বিরুদ্ধে ৭১ এর পরাজিত শক্তি গভীর ষড়যন্ত্র করে যাচ্ছে। তারা আজ বাংলাদেশের উন্নয়ন এবং অগ্রযাত্রায় বিরোধীতা করে যাচ্ছে। জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে। এদেশের জনগণ যখন শান্তিতে আছে, তখন বিএনপি-জামায়াতের নেতাকর্মীদের অন্তরে অশান্তি। সেই অশান্তির আগুনে তারা দেশের শান্তিকামী জনগণকে পুড়িয়ে মারতে চায়। কিন্তু দেশের শান্তিকামী জনগণ তা হতে দেবে না।

বিএনপি নির্বাচনকে পাশ কাটিয়ে বিকল্প পথে ক্ষমতায় যেতে চায়: শফিকুর রহমান চৌধুরী

শান্তি সমাবেশে জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি এডভোকেট নিজাম উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা ছাদ উদ্দিন আহমদ, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক কবীর উদ্দিন আহমদ, কোষাধ্যক্ষ শমসের জামাল, সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট মাহফুজুর রহমান, সাইফুল আলম রুহেল, আইন সম্পাদক এডভোকেট আজমল আলী, দফতর সম্পাদক আখতারুজ্জামান চৌধুরী জগলু, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক এডভোকেট মোহাম্মদ আব্বাছ উদ্দিন, বন ও পরিবেশ  বিষয়ক সম্পাদক মুস্তাক আহমদ পলাশ, শিক্ষা ও মানব সম্পদ বিষয়ক সম্পাদক বুরহান উদ্দিন আহমদ, উপ-দফতর সম্পাদক মো: মজির উদ্দিন, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এডভোকেট মনসুর রশীদ, শাহিদুর রহমান চৌধুরী জাবেদ, জেলা শ্রমিক লীগের সাধারণ সম্পাদক শামীম রশিদ চৌধুরী, জেলা কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক অধ্যক্ষ শামসুল ইসলাম, জেলা মহিলা লীগের সভাপতি এড. সালমা সুলতানা, সাধারণ সম্পাদক হেলেন আহমেদ, জেলা যুব লীগের সভাপতি শামীম আহমদ ভিপি, সাধারণ সম্পাদক শামীম আহমদ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সাধারণ সম্পাদক জালাল উদ্দিন কয়েছ, জেলা তাঁতী লীগের সাধারণ সম্পাদক সুজন দেব নাথ, জেলা মৎস্যজীবী লীগের সাধারণ সম্পাদক মৃদুল কান্তি দাস প্রমুখ।

মহানগর আওয়ামী লীগ নেতৃবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল খালিক, মোঃ সানাওর, জগদীশ চন্দ্র দাস, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আজাদুর রহমান আজাদ, সাংগঠনিক সম্পাদক এডভোকেট সৈয়দ শামীম আহমদ, ডাঃ আরমান আহমদ শিপলু, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক তপন মিত্র, দপ্তর সম্পাদক খন্দকার মহসিন কামরান, যুব ও ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক সেলিম আহমদ সেলিম, সাংস্কৃতিক সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত, সহ-প্রচার সম্পাদক সোয়েব আহমদ, মহানগর আওয়ামী লীগের সদস্যবৃন্দ আব্দুল আহাদ চৌধুরী মিরন, প্রিন্স সদরুজ্জামান চৌধুরী, মোঃ শাজাহান, এড. মোহাম্মদ জাহিদ সারোয়ার সবুজ, এমরুল হাসান, সুদীপ দেব, সৈয়দ কামাল, সাইফুল আলম স্বপন, তৌফিক বক্স লিপন, জামাল আহমদ চৌধুরী, খলিল আহমদ, ইঞ্জিনিয়ার আতিকুর রহমান সুহেদ, ইলিয়াছ আহমেদ জুয়েল, উপদেষ্টামন্ডলীর সদস্যবৃন্দ আব্দুল মালিক সুজন, এনাম উদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা সত্যেন্দ্র দাস তালুকদার (খোকা বাবু), কানাই দত্ত, মহানগর যুবলীগের সভাপতি আলম খান মুক্তি, হানগর তাঁতী লীগের সভাপতি নোমান আহমদ, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতিবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন আব্দুর রব হাজারী, আব্দুল হামিদ, মুহিবুর রহমান ছাবু, রোকন আহমদ, সাজোয়ান আহমদ, মোঃ ছয়েফ খাঁন, ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদকবৃন্দের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন সৈয়দ আনোয়ারুস সাদাত, এম.এ খান শাহীন, জায়েদ আহমেদ খাঁন সায়েক, মোঃ বদরুল ইসলাম বদরু, মইনুল ইসলাম মঈন, ফজলে রাব্বি মাসুম প্রমুখ।

শান্তি সমাবেশের শুরুতেই পবিত্র কোরআন থেকে তেলাওয়াত করেন জেলা কৃষক লীগের সভাপতি শাহ নিজাম উদ্দিন।

এ সংক্রান্ত আরও সংবাদ